বিরল এক দৃষ্টান্ত: মালিককে খুঁজে বের করে তিন লাখ ১৯ হাজার টাকা ফেরত দিলেন !

বিরল এক দৃষ্টান্ত: মালিককে খুঁজে বের করে তিন লাখ ১৯ হাজার টাকা ফেরত দিলেন !
আমাদের কন্ঠস্বর ডেস্ক | জানুয়ারি ৬, ২০১৭

%e0%a7%a7
মালিককে খুঁজে বের করে বিমানের ভেতরে কুড়িয়ে পাওয়া তিন হাজার ২৮৫ পাউন্ড (তিন লাখ ১৯ হাজার টাকা) ফেরত দিয়েছেন বিমান বাংলাদেশের এক কর্মী। বাংলাদেশে এসে ওই অর্থ ফেরত নিয়েছেন এক লন্ডন প্রবাসী।

কাজী আশরাফ আল কাদের হ্যাপি নামের ওই ব্যক্তি বিমান বাংলাদেশের একজন কেবিন ক্রু। ২২ বছর ধরে এ পেশায় আছেন তিনি।

আশরাফ আল কাদের এনটিভি অনলাইনকে বলেন, গত ১৫ ডিসেম্বর বিমান বাংলাদেশ-বিজি ০০২ ফ্লাইটে লন্ডনের হিথ্রো বিমানবন্দর থেকে ঢাকায় ফিরছিলেন। এ সময় একজন যাত্রী তাঁকে ডেকে সিটের মধ্যে একটি ময়লা ব্যাগ পড়ে থাকার বিষয়ে জানান। তখন কালো রঙের ব্যাগটি তুলে জ্যাকেটের পকেটে রাখেন তিনি। ভেবেছিলেন, ব্যাগটি ডাস্টবিনে ফেলে দেবেন। কিন্তু পরে তা ভুলে যান।

বিমান ক্রু আরো জানান, বিমানটি ঢাকায়পৌঁছালে তাঁর নিয়মিত কাজ শেষে বাসায় ফেরেন। বাসায় গিয়ে জ্যাকেট খোলার সময় ওই ব্যাগের কথা মনে পড়ে। এরপর ব্যাগটি বের করেন। ব্যাগটি খুলে দেখেন, তাতে বেশ কিছু কাগজপত্রসহ একটি খাম। ওই খামটি খুলে দেখেন তাতে তিন হাজার ২৮৫ পাউন্ড।

এরপর খুঁজতে গিয়ে ওই কাগজপত্রের এক জায়গায় পেয়ে যান একটি ফোন নম্বর। সেখানে ফোন করে জানতে পারেন ব্যাগটির মালিক লন্ডন প্রবাসী মো. শামীম আহমেদ, যার বাড়ি হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার মিঠাপুর গ্রামে। ওই ব্যক্তিকে ব্যাগটি পাওয়ার কথা জানান। শামীম জানান, দেশে এলে তাঁর সঙ্গে দেখা করবেন। এরপর গত ২৯ ডিসেম্বর শামীম আহমেদ বাংলাদেশে আসেন। গতকাল বৃহস্পতিবার আশরাফ আল কাদেরের সঙ্গে তাঁর মোহাম্মাদপুরের বাসায় দেখা করেন শামীম। এ সময় ব্যাগের সব কিছু ফেরত দেন ওই বিমান ক্রু।

এত টাকা পেয়েও ফেরত দেওয়ার বিষয়ে বিমান ক্রু বলেন, ‘নিজের দায়িত্ব মনে করে ওই টাকা তাঁর মালিককে ফিরিয়ে দিয়েছি।’

লন্ডনপ্রবাসী মো. শামীম আহমেদ এনটিভি অনলাইনকে বলেন, ‘আমি কোনোদিন ভাবতেই পারিনি হারিয়ে যাওয়া ব্যাগ ও টাকা ফেরত পাব। এখনো দুনিয়ায় এমন ভালো মানুষ আছে!’

এই বিষয়ে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের জি এম (জনসংযোগ) শাকিল মেরাজ বলেন, ‘আশরাফ আল কাদের হ্যাপি একজন সৎ কর্মী। অনেক দিন ধরেই তিনি বিমানে কাজ করছেন। তাঁর এ মহৎ কাজ একটা বড় শিক্ষা হয়ে থাকবে সবার জন্য। বিমান বাংলাদেশ তাঁকে নিয়ে গর্ব করে।